Tokay Gecko: শিরাকোলে পুলিশি অভিযানে উদ্ধার তক্ষক, গ্রেফতার চার পাচারকারী

Loading...

বন দফতর এবং পুলিশ-প্রশাসনের নজরদারি উপেক্ষা করে জেলা জুড়ে ক্রমশ সক্রিয় হচ্ছিল বন্যপ্রাণ পাচারচক্র। এ বার একটি পাচারচক্র জালে পড়ল উস্তি থানার পুলিশ এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা বন দফতরের। মঙ্গলবার বিকেলে তক্ষক (টোকে গেকো) পাচারের সময় স্থানীয় শিরাকোল এলাকা থেকে চার পাচারকারীকে হাতেনাতে পাকড়াও করা হয়। গাড়ি থেকে উদ্ধার হয় একটি তক্ষক।

ধৃত ৪ পাচারকারি এবং উদ্ধার হওয়া তক্ষকটিকে বন দফতরের হাতে তুলে দেওয়া হয়। বুধবার ধৃতদের ডায়মন্ড হারবার মহকুমা আদালতে পেশ করা হলে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক।

মঙ্গলবার গোপন সূত্রে পুলিশ জানতে পারে, উস্তি-শিরাকোল রোড দিয়ে একটি তক্ষক পাচার করে পেঁয়াজগঞ্জ এলাকায় বিক্রির ছক এঁটেছে পাচারকারীরা। দলটিকে ধরতে উস্তি থানার এসআই কে ডি সিংহের নেতৃত্বে পুলিশ বাহিনী এবং জেলার স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ(এসওজি) অভিযানে নামে। বিকেল ৫টা নাগাদ শিরাকোলের কাছে পাচারকারীদের গাড়িটিকে ধরে ফেলে পুলিশ। উদ্ধার হয় লুপ্তপ্রায় একটি তক্ষক।

Loading...

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের মধ্যে শিবনাথ গায়েন(২৮) এবং প্রভাত মালিক (৪৭) উস্তি থানার বাসিন্দা। পুলক মুখোপাধ্যায় (২০) এবং চিরঞ্জীব কয়াল (৫৩) রামনগর থানা এলাকার বাসিন্দা। ধৃতদের বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে। এই চক্রের সঙ্গে আর কারা যুক্ত তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছে বন দফতর।

জেলার বিভাগীয় বনাধিকারিক (ডিএফও) মিলন মণ্ডল বুধবার বলেন, ‘‘উদ্ধার হওয়া তক্ষকটির ওজন প্রায় ১৫০ গ্রাম। এটিকে উদ্ধার করে পুলিশ আমাদের হাতে তুলে দিয়েছে। এখন আদালতের নির্দেশ পেলেই তক্ষককে মুক্ত প্রকৃতিতে ছেড়ে দেওয়া হবে।’’

Loading...
Loading...
Share

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *