Afghanistan: ‘Kashmir অভ্যন্তরীণ, দ্বিপাক্ষিক বিষয়’, Taliban-দের গলায় ভারতের সুর

Loading...

বাদিক বৈঠকেই কাশ্মীর নিয়ে মুখ খুলল জঙ্গি গোষ্ঠীটি। ভারত (India)-পাকিস্তানের (Pakistan) মধ্যে যে এলাকা নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে দ্বন্দ্ব জারি রয়েছে, সেই এলাকা নিয়ে তাদের কী অবস্থান, মঙ্গলবার রাতে কাবুলে সাংবাদিক বৈঠকে তা স্পষ্ট করলেন তালিবান মুখপাত্র জবিউল্লা মুজাহিদ।

আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পাকিস্তানের মদতে জম্ম-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তইবা (Lashkar-e-Taiba)। আবার তালিবানদের মদতে  আফগানিস্তানের বেশ কিছু এলাকাতেও ঘাঁটি তৈরি করেছে লস্কর-ই-তইবা (Lashkar-e-Taiba) এবং লস্কর-ই-জঙ্গভির (Lashkar-e-Jhangvi) মতো জঙ্গি গোষ্ঠীগুলো। ফলে একটা বিষয় স্পষ্ট যে, তালিবানের সঙ্গে লস্করের সুসম্পর্ক রয়েছে। এই পরিস্থিতিতে নয়াদিল্লির আশঙ্কা ছিল, কাশ্মীরে উগ্রবাদ বাড়াতে লস্করকে সাহায্য করতে পারে তালিবান। তবে মঙ্গলবার জেহাদি সংগঠনটির সাংবাদিক সম্মেলনে একটু স্বস্তির বার্তা পাওয়া গেল। ওইদিন তালিবান মুখপাত্র জবিউল্লা মুজাহিদ সাফ জানান, “কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তরীণ এবং দ্বিপাক্ষিক বিষয়।”

Loading...

পাকিস্তান যতই আন্তর্জাতিক মহলে আলোচনার কথা বলুক না কেন, কাশ্মীরকে বরাবরই অভ্যন্তরীণ বিষয় বলে এসেছে ভারত। এমনকী একাধিকবার আমেরিকার মধ্যস্থতা করার আর্জিও খারিজ করেছে নয়াদিল্লি। ফলে এবার ভারতের সেই সুরই শোনা গেল তালিবানদের গলায়। তালিবান দখলে কাবুল। আতঙ্কে আফগানিস্তান। বিপন্ন মানবতা। দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন প্রেসিডেন্ট আশরফ ঘানি। শীঘ্রই ক্ষমতা হস্তান্তর চায় তালিবান নেতারা। ইতিমধ্যে আফগানিস্তানের নাম বদলে Islamic Emirate of Afghanistan ঘোষণা করেছে তালিবান। 

Loading...
Loading...
Share

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *