Afghainstan Crisis: কাবুলে এ বার রকেট হানা! লক্ষ্য আমেরিকার নাগরিকরা, কয়েক জনের হতাহতের আশঙ্কা

Loading...

আমেরিকার আশঙ্কা সত্যি করে ফের বিস্ফোরণ কাবুলে। বৃহস্পতিবারের জোড়া বোমা হামলার পর শনিবার আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছিলেন, আগামী ২৪-৩৬ ঘণ্টার মধ্যেই কাবুল বিমানবন্দরে বিস্ফোরণ হতে পারে। তার ঠিক কয়েক ঘণ্টা পর ফের বিস্ফোরণের ঘটনা সামনে এল। এখনও পর্যন্ত এক শিশু-সহ দু’জনের মৃত্যু এবং তিন জনের আহত হয়েছেন বলে দাবি বিভিন্ন সূত্রে।
আফগানিস্তানের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, হামিদ কারজাই বিমানবন্দরের কাছে খাওয়াজা বুঘরা এলাকায় রকেট হামলা চালানো হয়েছে। ওই এলাকায় রয়েছেন আমেরিকার নাগরিকেরা। তাঁদের নিশানা করেই এই হামলা চালানো হয়েছে বলে খবর।

চার দিন আগেই সন্ধে নাগাদ কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে প্রথমে অ্যাবি গেটের কাছে একটি আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ, তার পর আবার একটি বোমা হামলা কিছুটা দূরে ব্যারন হোটেলের কাছে। ওই ঘটনায় শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছে বলে খবর মিলেছে। ঘটনার দিনই গভীর রাতে হামলায় দায় স্বীকার করে নিয়েছিল আফগানিস্তানে আইএসের ‘খোরাসান’ শাখা সংগঠন।

Loading...

আমেরিকার সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, এখনও আফগানিস্তানে রয়ে গিয়েছেন প্রায় ৩৫০ জন আমেরিকার নাগরিক, যাঁরা দেশে ফিরতে চান। তাঁদের সতর্ক করে শনিবার দুপুরে বাইডেন বলেছেন, ‘‘পরিস্থিতি এখনও বেশ বিপজ্জনক। আগামী ২৪-৩৬ ঘণ্টার মধ্যে আবার হামলা হতে পারে। অত্যন্ত সতর্ক থাকুন। দরকারে সেনাবাহিনীর সাহায্য নিন।’’ বাইডেনের এই ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা পরে কাবুলে আমেরিকার দূতাবাসও জানিয়েছে বিমানবন্দর সংলগ্ন বিস্তৃত এলাকায় যেন লাল সতর্কতা জারি করা হয়। হামিদ কারজাই বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকার পাশাপাশি বিমানবন্দরের দক্ষিণ প্রান্তের এয়ারপোর্ট সার্কেল গেট এবং উত্তর-পূর্ব দিকের পঞ্জশির পেট্রল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় অবিলম্বে নজরদারি বাড়াতে বলা হয়েছে বিবৃতিতে।

Loading...
Loading...
Share

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *