ত্রিপুরায় প্রভাব বিস্তারে টুইটার-ফেসবুকে বিজ্ঞাপন তৃণমূলের, কটাক্ষ বিজেপির

Loading...

তৃণমূলের এখন পাখির চোখ ত্রিপুরা। ২০২৩ সালের বিধানসভা নির্বাচনে জিতে ত্রিপুরায় সরকার গঠন করার লক্ষ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছে TMC। উত্তর-পূর্ব ভারতের এই রাজ্য ঘাসফুল ফোটাতে মরিয়া TMC।

তাই প্রতি সপ্তাহেই তৃণমূল নেতারা ত্রিপুরা যাবেন বলে জানিয়েছেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ‘মিশন ত্রিপুরা’-তে দলের নেতারা ঘনঘন গিয়ে বৈঠক করে সংগঠন মজবুত করার কাজ শুরু করেছেন। অন্যদিকে, মানুষের কাছে পৌঁছাতে সোশ্যাল মিডিয়াকেও হাতিয়ার করেছে TMC। এইজন্যAITC Tripura নামে Twitter-এ অ্যাকাউন্ট খুলেছে। টুইটারের পাশাপাশি ফেসবুকেও প্রচার করছে তৃণমূল। ত্রিপুরা রাজ্যে তাদের কাজ সোশ্যাল মিডিয়াতে দেওয়া হচ্ছে।

Loading...

এটা করতে গিয়ে একের পর এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়ছে তৃণমূল। সাম্প্রতিক বিতর্ক শুরু হয় যখন নেটিজেনরা দেখেন, Facebook-এ AITC Tripura – পেজে দেখা যায় ‘sponsored’ লেখা রয়েছে। বিতর্কের মুখে তারা আবার সেখানে এখন ‘Political Party’ লিখেছে।

TMC (1)

তবে তাতে বিতর্ক থামেনি। নেটিজেনরা তৃণমূলের কাজ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। একজনকে ফেসবুকে ওই পেজ follow করার জন্য ‘invite’ করা হয়। তিনি বলেন, ‘সোশ্যাল মিডিয়াতে কোনও রাজনৈতিক দলের পেজ থাকলে উচিত যে তাদের নিজেদের লোকদের দিয়ে সেটি share করা। কিন্তু বিজ্ঞাপন দিয়ে, জোর করে পছন্দ করার জন্য কাউকে বলার মানে হল সেই দলের কোনও লোক নেই। তারা যেনতেন প্রকারে নিজেদের প্রচার করতে চাইছে।’

Loading...

এদিকে, দলের সমর্থকরাও বলছেন, সোশ্যাল মিডিয়াতে নজর দেওয়ার আগে দলের রাজ্য কমিটি আগে করা উচিত। এই রাজ্যে গিয়ে Abhishek Banerjee ‘এবার ত্রিপুরা’ নামে যে পেজ খুলেছেন, তাতে ত্রিপুরা রাজ্যের চেয়ে অন্য রাজ্যে বেশি retweet হয়েছে। একে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি BJP। তাদের এক নেতা বলেন, ‘ত্রিপুরাতে তৃণমূলের নিজেদের লোক বেশি নেই। তারা নিজের রাজ্যের পেজ নিজেরাই চালাতে পারে না। তাই বাইরে থেকে ওই পেজ চালিয়ে সেখানে সরকার গড়ার কথা বলছে।’

এই মাসেই ওই পেজ চালু করার পরে, ত্রিপুরা থেকে রিটুইট করা হয়েছে মাত্র দেড় হাজার। পশ্চিমবঙ্গের নেতারা করেছেন প্রায় ৫০ হাজার টুইট। দিল্লি থেকে করা হয়েছে প্রায় ২৩ হাজার। টুইট এবং রিটুইট করা হয়েছে ইরাক এবং অন্য দেশ থেকেও। একে কটাক্ষ করে BJP বলেছে, ‘যদি বাইরে থেকে, ইরাক থেকে, ভোটার নিয়ে নিয়ে ত্রিপুরাতে TMC জিততে পারে তাহলে তাদের নির্বাচনের লড়াইয়ে স্বাগত জানাচ্ছি।’

Loading...
Loading...
Share

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *