ডেল্টা ভ্যারিয়্যান্টের দাপট, বাড়ির দরজায় দরজায় তালা লাগাচ্ছে চিন!

Loading...

চিনে মারাত্মক হারে বাড়তে শুরু করেছে করোনা সংক্রমণ (China Covid 19)। গত সাত মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ সংক্রমণ দেখা যাচ্ছে চিনে। করোনা আতঙ্ক গ্রাস করেছে এই দেশকেও। এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, বাসিন্দাদের ঘরের মধ্যে আটকে রাখছে চিন।

দেশজুড়ে ডেল্টা ভ্যারিয়্যান্টের প্রকোপ বৃদ্ধি পেতেই অতি সতর্ক চিন। দাবি করা হচ্ছে, চিনে করোনা মহামারির শুরুতেও এই একই রকমের কৌশল অবলম্বন করা হয়েছিল। এবার ডেল্টা ভ্যারিয়্যান্টের দাপট বাড়তেই চিন ফের পুরনো কৌশল অবলম্বন করছে বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় দাবি করা হয়েছে।

Loading...

ওয়েইবো, টুইটার, ইউটিউব থেকে সামনে আসা ভিডিয়োগুলিতে দেখা যাচ্ছে, বহু বাড়ির দরজায় আধিকারিকেরা লোহার বার আটকে, তা হাতুড়ি দিয়ে আটকে দিচ্ছে। ভিডিয়োগুলি সামনে আসতেই রীতিমতো হৈ হৈ পড়ে পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

টুইটারে শেয়ার হওয়া একটি ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, এক ব্যক্তি অ্যাপার্টমেন্টে ঢোকার আগে মাস্ক খুলে ফেলেছেন। তাঁর বিরুদ্ধে কোয়ারেন্টাইন বিধি ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে। ইউটিউবে আপলোড করা একটি ভিডিয়োতে এক ব্যক্তি দাবি করেছেন, যদি কোনও ব্যক্তি দিনে তিনবারের বেশি দরজা খোলে, তবে তাদেরকে ঘরের মধ্যেই আটকে রাখা হচ্ছে। তাইওয়ান নিউজের একটি ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, পিপিই পরে একদল লোক একটি দরজার উপরে লোহার বার দিয়ে আটকে দিচ্ছে।

Loading...

শুধু এমন একটি বা দু’টি ভিডিয়ো না। সোশ্য়াল মিডিয়ায় এমন অসংখ্য ভিডিয়ো চিন থেকে ভাইরাল হয়েছে। করোনার দাপট বৃদ্ধি পাওয়ায় উহানের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, তাঁরা গোটা শহরের লোকেরই কোভিড পরীক্ষা করবে। খবর মোতাবেক জানা গিয়েছে, পরিস্থিতি সামলাতে কয়েক জায়গায় লকডাউনও জারি করা হয়েছে। আগে একসময় চিনে করোনা সংক্রমণ শূন্যতে নেমে এসেছিল। কিন্তু ডেল্টা ভেরিয়ন্টের কেস বাড়তেই চিন্তায় চিন।

Loading...
Loading...
Share

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *